ফতোয়ার ১০ প্রশ্নোত্তর

জয়যাত্রা ডট কম : 18/06/2016

vai-550x409আমির পারভেজ : জঙ্গিবাদকে হারাম ঘোষণা করে যে এক লাখ আলেম সম্মিলিতভাবে ফতোয়া দিয়েছেন তারা বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন ও উত্তর সংগ্রহ করেন। এসব প্রশ্ন ও তার উত্তর পাঠকদের জন্যে পরিবেশন করা হল।
প্রশ্ন : ইসলাম কি সন্ত্রাস ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সমর্থন করে?
উত্তর : ইসলাম কখনও সন্ত্রাস ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সমর্থন করে না। ইসলাম এমনকি অকারণে গাছ পালা-লতাপাতা কাটাও সমর্থন করে না।
প্রশ্ন : মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স:) কি সহিংস ও নৃশংস উপায়ে ইসলাম কায়েম করেছেন?
উত্তর : শুধু মাত্র মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স:) নয়, কোন নবী ইসলাম কায়েম করার জন্য সহিংস ও বর্বর উপায় অবলম্বন করেন নি। হযরত মুহাম্মদ (স:) বলেছিলেন, কল্যাণ কখনও খারাপ কাজ দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে না। তিনি আরও বলেন, ভাল কিছু প্রতিষ্ঠা করার জন্য সবসময় ভালো পথ অবলম্বন করতে হবে।
প্রশ্ন : ইসলামে জিহাদ এবং সন্ত্রাসবাদ একই জিনিস?
উত্তর : জিহাদ হচ্ছে একজন ভাল মুসলিম বা মুমিন হবার অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক প্রচেষ্টা। অন্যদিকে সন্ত্রাসবাদ ইসলামে অবৈধ আর নিষিদ্ধ।
প্রশ্ন : সহিংসতা কি স্বর্গ নিশ্চিত করবে না নরকের দিকে পরিচালিত করবে ?
উত্তর : যেহেতু ইসলামে সহিংসতা নিষিদ্ধ সেহেতু এই সহিংসতা কোনদিনও জান্নাতের রাস্তা হতে পারে না বরং এই সহিংসতা নরকের দিকে পরিচালিত করবে। যারা জান্নাতে যাবার জন্য সহিংসতার পথ বেছে নিয়েছে তাদের উচিত এখনই মহান আল্লাহ’র কাছে ক্ষমা চেয়ে সঠিক ইসলামের পথ অনুসরণ করা। আল্লাহ ফ্যাসাদকারীদের অপছন্দ করেন।
প্রশ্ন : কোন অপরাধীর আতœহত্যা কি শহীদী মর্যাদা পাবে?
উত্তর : আতœহত্যা ইসলামে মহাপাপ। এমনকি আতœহত্যাকারীর জানাযাও ইসলামে নিষিদ্ধ।
প্রশ্ন : গণহত্যা কি ইসলামে বৈধ?
উত্তর : নিরীহ মানুষ নির্বিচারে হত্যা ইসলামে অবৈধ এমনকি সন্দেহ করে হত্যাও ইসলামি আইনে নিষিদ্ধ।
প্রশ্ন : ইসলামে শিশু, নারী ও বৃদ্ধদের নির্বিচারে হত্যাকান্ড সমর্থন করে?
উত্তর : না। ইসলামে শিশু, নারী, বৃদ্ধ, যারা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে অক্ষম, তাদের নির্বিচারে হত্যাকান্ড কঠিনভাবে নিষিদ্ধ করেছে। এমনকি সে অন্য ধর্মের হলেও হত্যা করা যাবে না।
প্রশ্ন : ইবাদতের সময় মানুষ হত্যা করা কি ধরনের অপরাধ?
উত্তর : ইবাদতের সময় মানুষ হত্যা করা জঘন্য ও মারাতœক অপরাধ। যে ব্যক্তি নিজের ইচ্ছায় কোন মুসলমানকে হত্যা করল তার শাস্তি অনন্ত নরক।
প্রশ্ন: গির্জা, মন্দির ও প্যাগোডায় ওপর হামলা করা কি ধার্মিক কোন কাজ ?
উত্তর : ইসলামের দৃষ্টিতে, গির্জা, মন্দির ও প্যাগোডায় ওপর হামলা করা নিষিদ্ধ এবং অবৈধ।
প্রশ্ন : সন্ত্রাসী ও বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলা কি আমাদের সবার দায়িত্বের মধ্যে পরে?
উত্তর : ধর্মীয়ভাবে এটা খুব বেশি প্রয়োজন সন্ত্রাসী ও বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলা। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স:) তার অনুসারীদের বলেন, আল্লাহ তাদের শাস্তি দিবেন যারা পাপের কাজে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে না।
সূত্র : ডেইলি স্টার




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019