• প্রচ্ছদ » জাতীয় » ‘ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে রাস্তার উন্নয়ন করা হবে’


‘ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে রাস্তার উন্নয়ন করা হবে’

জয়যাত্রা ডট কম : 05/12/2017

নিজস্ব প্রতিবেদক : নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে স্থলবন্দরগুলোর সড়ক ও রাস্তার উন্নয়ন করা হবে। মঙ্গলবার সচিবালয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে পানগাঁও কন্টেইনার পোর্টসহ দেশের বিভিন্ন স্থলবন্দরকে আঞ্চলিক ও জাতীয় মহাসড়কের সাথে সংযোগের লক্ষ্যে সড়ক ও রাস্তা উন্নয়ন সংক্রান্ত এক আন্ত:মন্ত্রণালয় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. আবদুস সামাদ, বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান তপন কুমার চক্রবর্তী, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল মালেক, সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোহাম্মদ রবিউল আলম এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (মনিটরিং) মো. জিকরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ও গতিশীলতা বাড়াতে দেশের স্থলবন্দরগুলো ও পানগাঁও কন্টেইনার পোর্টকে আঞ্চলিক ও জাতীয় মহাসড়কের সাথে সংযোগের লক্ষ্যে বিভিন্ন সড়ক ও রাস্তার উন্নয়ন করা হবে। সে লক্ষ্যে দ্রুত প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়নের ব্যবস্থা করবে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। স্থলবন্দর সংলগ্ন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিআরডি) রাস্তাগুলো সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতায় আনার জন্যও সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ কাজ করবে।

সভায় যশোর জেলা সদর থেকে বেনাপোল স্থলবন্দর পর্যন্ত ৪৪ কিলোমিটার, সাতক্ষীরা জেলা শহর থেকে ভোমরা স্থলবন্দর পর্যন্ত ১৫ কিলোমিটার, সিলেট থেকে তামাবিল পর্যন্ত ৬০ কিলোমিটার, লালমনিরহাট জেলা সদর থেকে বুড়িমারী স্থলবন্দর পর্যন্ত ১০০কিলোমিটার, জয়পুরহাট থেকে হিলি স্থলবন্দর হয়ে জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সোনামসজিদ পর্যন্ত রাস্তা চার লেনে উন্নীত করার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

সভায় জানানো হয় যে, ফেনী জেলা হতে বিলোনিয়া স্থলবন্দর পর্যন্ত ৩৩ কিলোমিটার, জামালপুর জেলা হতে ধানুয়াকামালপুর পর্যন্ত ৪৫ কিলোমিটার রাস্তা দুই লেনে নির্মাণ, হবিগঞ্জের চুনারুঘাট হতে বাল্লা পর্যন্ত ১৬ কিলোমিটার প্রশস্তকরণ ও তিন কিলোমিটার রাস্তা নতুনভাবে দুই লেনে নির্মাণ করতে হবে। এছাড়া কুড়িগ্রামের সোনাহাট, দিনাজপুরের বিরল, ময়মনসিংহের গোবরাকুড়া-কড়ইতলী, খাগড়াছড়ির রামগড়, চুয়াডাঙ্গার দৌলতগঞ্জ, নীলফামরীর চিলাহাটি, চুয়াড়াঙ্গার দর্শনা, কক্সবাজারের টেকনাফ ও সিলেটের শেওলা স্থলবন্দরের রাস্তা প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রয়োজন।

সভায় আরো জানানো হয়, ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জে পানগাঁও কন্টেইনার পোর্টটি ঢাকা-মাওয়া সড়কের সাথে সংযোগের জন্য ৪.২ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। সেখানে ০.৫ কিলোমিটার রিং রোড প্রয়োজন। সড়ক ও জনপথ বিভাগ এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে।




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - শরিফা নাজনীন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019