• প্রচ্ছদ » বিভাগীয় সংবাদ » ভোলায় এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও পরীক্ষায় অংশ গ্রহন নিশ্চিতের দাবীতে মানববন্ধন


ভোলায় এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও পরীক্ষায় অংশ গ্রহন নিশ্চিতের দাবীতে মানববন্ধন

জয়যাত্রা ডট কম : 31/07/2018

নুরে আলম ফয়জুল্লাহ ভোলা প্রতিনিধি : ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা ইসলামিয়া মডেল কলেজের অধ্যক্ষ’র অবহেলায় উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ১৪৪ জন শিক্ষার্থীর ২০১৯ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় তারা অংশ গ্রহনে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। ওই ছাত্রছাত্রীদের বোর্ডে রেজিষ্ট্রেশন ফিসহ কাগজপত্র জমা না দেয়ায় এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষাজীবনে অনিশ্চযতা মুখে পড়া বিক্ষুব্ধ ছাত্রছাত্রীরা রেজিষ্ট্রেশন না হওয়ায় দ্রুত নিবন্ধন কার্ড পাওয়াসহ পরীক্ষায় অংশগ্রহনের সুযোগ পেতে বিক্ষোভ মিছিলসহ মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে। মঙ্গলবার দুপুরে ভোলা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ইলিশা ইসলামিয়া মডেল কলেজের ছাত্রছাত্রীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

এসময় ছাত্র-ছাত্রীরা বলেন, ইলিশা ইসলামিয়া মডেল কলেজের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের দ্বাদশ শ্রেনীর ১৪৪ জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তিকালীন সময়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও কলেজের নির্ধারিত ফি বাবদ টাকা দিয়ে ভর্তি হয়। মাত্র কয়েক মাস পর তাদের ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষা। কিন্তু এখন পর্যন্ত তাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফি বোর্ডে জমা দেওয়া হয়নি। যার ফলে রেজিস্ট্রেশন কার্ড হয়নি। অথচ বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো রেজিস্ট্রেশন কার্ড প্রদান করেছে। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ভর্তি ও রেজিষ্টেশনের জন্য আদায়কৃত প্রায় ৩ লাখ টাকা শিক্ষা বোর্ডে জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেন অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিন। তাই দুর্নীতিবাজ অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিনের শাস্তি দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। তারা বলেন,তাদের শিক্ষা জীবন অনিশ্চিত হয়ে পরেছে। তাই তারা রেজিস্ট্রেশন করে ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষা নিশ্চিতের দাবী জানান। দ্বাদশ শ্রেনির মোঃ রাজিব, তানভির হোসেনসহ শতাধিক শিক্ষার্থী সাংবাদিকদের জানান, তাদের ভবিষ্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এইচএসসি পরীক্ষায় তারা আর অংশ নিতে পারছে না। এর জন্য অভিযুক্ত অধ্যক্ষের বিচার দাবিও করে তারা। একই সঙ্গে তাদের পরীক্ষা দেয়ার সৃুযোগ করে দেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক ও বরিশাল শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যানের কাজে দাবি জানায় তারা।
ওই কলেজের শিক্ষক কামাল হোসেন জানান, উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে ১৪৪ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে ১৪৪জনকে অন লাইন আবেদনের মাধ্যমে ভর্তি করা হয়েছে । তবে এদের কোন রেজিষ্ট্রেশন করা হয়নি। গত ডিসেম্বর মাসে রেজিষ্ট্রেশনের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।
সূত্র জানান,১২০০ টাকা জড়িমানা ফি দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করা যেতে পারে। কিন্তু ওই জড়িমানা কে দিবে এ নিয়ে ইসলামিয়া মডেল কলেজটিতে এখন অচল অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে প্রতারনা একটি মামলা করেছেন অভিভাবক সদস্য মোঃ নুরুল ইসলাম। কলেজ অধ্যক্ষ পলাতক থাকার কারনে তার গত মাসের বেতন ভাতা পায়নি কলেজের শিক্ষকরা। কলেজের কাউকে অধ্যক্ষের দাযিত্বও বুঝিয়ে দেননি। এ ব্যাপারে তার মোবাইলে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। এদিকে মানববন্ধন শেষে ছাত্র-ছাত্রীরা জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019