ভোলায় গৃহহীন পরিবার পাচ্ছেন ৫’শ ঘর

জয়যাত্রা ডট কম : 07/09/2018


নুরে আলম ফয়জুল্লাহ, ভোলা প্রতিনিধি:
জেলার সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রী’র উপহার হিসাবে ৫’শ ১১টি বসত ঘর করে দেওয়া হচ্ছে গৃহহীনদের জন্য। প্রত্যেকটি ঘর নির্মান ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ টাকা করে। এর মাধ্যমে সমাজের অসহায়, দরিদ্র ও ভাসমান মানুষের জন্য আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

উন্নয়ন ঘটবে এসব পরিবারের কয়েক হাজার মানুষের জীবনমানের। তাই প্রচণ্ড খুশি সমাজের অসহায় মানুষগুলো ঘর পেয়ে। এজন্য তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মাধ্যমে এসব গৃহ প্রস্তুত করা হচ্ছে। প্রতিটি ঘর সাড়ে ১৬ ফুট বাই সাড়ে ১৫ ফুট করে ণির্মান হচ্ছে। ঘরগুলোর ফ্লোর পাঁকা, সামনে খোলা বারান্দা, আরসিসি পিলার, পাশে ও উপরে টিন দিয়ে ণির্মিত হচ্ছে। এছাড়া রয়েছে স্যানিটেশনের সু-ব্যবস্থা।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামাল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের গৃহহীন পরিবারের চাহিদামত স্থানে এসব ঘর করে দেওয়া হচ্ছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে গৃহহীনদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। ইতোমধ্যে গৃহ ণির্মানের প্রায় ৫০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ঘর প্রাপ্তির ফলে সমাজের অবহেলিত মানুষগুলোর সামাজিক মূল্যায়ন বৃদ্ধিসহ প্রত্যাহিক জীবনের দূর্ভোগ থেকে মুক্তি মিলবে। কাজের গুনগত মান বজায় রাখার জন্য নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে বলেও জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

সরেজমিনে বাপ্তা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের উত্তর চরনোয়াবাদ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, গৃহ ণির্মানের কাজ চলছে।
ঘরের মালিক আবুল কালাম (৬০) বলেন, আমি ক্ষুদ্র চা বিক্রেতা। এতোদিন ঘর না থাকায় দোকানেই কোন রকমে থাকতাম। স্ত্রী আর সন্তানরা থাকতেন অন্যের ঘরে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আমাদের ঘর তৈরি করে দেওয়ায় আমার পরিবার সবাইকে নিয়ে একসাথে থাকতে পারব।

স্থানীয় দরিদ্র দিনমজুর মো. মহিউদ্দিন। বয়স ৩৫ বছর। মেয়ে ও স্ত্রী নিয়ে কোন রকমের একটি ঝুপড়ীর মধ্যে বাস করতেন। নিজের এক খণ্ড জমি থাকলেও অর্থের অভাবে ঘর করতে পারেননি। বছরের সারা সময় কষ্ট হলেও বর্ষা মৌসম ও শীতে সবচে বেশি কষ্ট করতে হতো মহিউদ্দিনের পরিবারকে। এখন প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরে থাকবেন।

মো. মহিউদ্দিন বলনে, টাকার অভাবে নিজের জমি থাকার পরেও ঘর করতে পারিনি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের এখন ঘর তৈরি করে দিচ্ছেন। এখন আর পরিবারকে নিয়ে শীত-বৃষ্টিতে আর আর কষ্ট করতে হবে না।




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019