ফ্লোরেন্স এখন যুক্তরাষ্ট্রে

জয়যাত্রা ডট কম : 14/09/2018


জয়যাত্রা ডেস্ক:
হারিকেন ফ্লোরেন্সের প্রভাবে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলের অনেক এলাকায় দমকা বাতাস ও বৃষ্টির পরিমাণ বাড়ছে। মার্কিন আবহাওয়া অধিদফতর হারিকেনটির মাত্রা ১-এ নামিয়ে আনলেও প্রাণঘাতী এ ঝড় নর্থ ও সাউথ ক্যারোলাইনা এবং ভার্জেনিয়াকে লণ্ডভণ্ড করে দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে তিনটি রাজ্যের উপকূলরেখার ১০ লাখেরও বেশি বাসিন্দাকে বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

নর্থ ও সাউথ ক্যারোলাইনায় আছড়ে পড়ার পর ঝড়টি ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার বেগের বাতাস নিয়ে উপকূল থেকে ভেতরের দিকে অগ্রসর হতে পারে বলে কর্মকর্তারা সতর্ক করেছেন।

বৃহস্পতিবার মার্কিন পূর্ব উপকূলে দমকা বাতাসের ঝাপটা ক্রমাগতভাবে বেড়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতি খারাপ হতে শুরু করায় এরই মধ্যে এক লাখেরও বেশি বাড়িঘরের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

ঝড়ের কারণে যে ভয়াবহ বন্যার আশঙ্কা করা হচ্ছে, তা ব্যাপক প্রাণহানি ঘটাতে পারে বলেও অনুমান জরুরি ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মকর্তাদের।

বিভিন্ন ছবিতে আশ্রয়কেন্দ্রের বারান্দায় কম্বল, বাতাসে ফোলানো যায় এমন ম্যাট্রেস ও বিছানা নিয়ে মানুষজনকে ভিড় করতে দেখা গেছে।

নর্থ ক্যারোলাইনার কিছু এলাকায় কয়েক ঘণ্টায় এক ফুটের মতো বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে বলেও বিবিসি জানিয়েছে। সমুদ্রের পানির উচ্চতার সঙ্গে সঙ্গে উপকূলে আছড়ে পড়া ঢেউয়ের তীব্রতাও বাড়ছে।

বাতাসের বেগ আগের তুলনায় কিছুটা কমে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার ঘূর্ণিঝড় ফ্লোরেন্সের তীব্রতার মাত্রা ১-এ নামিয়ে আনলেও তুমুল বৃষ্টি ও ঝড়ের তীব্রতার কারণে ফ্লোরেন্স এখনও যথেষ্ট শক্তিশালী বলেও হুশিয়ার করেছে তারা।




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019