• প্রচ্ছদ » ফিচার » যাত্রাদলের শিল্পী থেকে মাছের ফেরিওয়ালা রংপুরের জিতিন


যাত্রাদলের শিল্পী থেকে মাছের ফেরিওয়ালা রংপুরের জিতিন

জয়যাত্রা ডট কম : 11/11/2018

রবিউল ইসলাম দুখু , রংপুর প্রতিনিধি : জিতিন চন্দ্র রায়।বয়স ৬০ বছর । কিন্তু দেখে বোঝার উপায় নেই। তিনি প্রত্যেক দিন ভোরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে প্রায় ১২ কিলোমিটার দুরে পায়ে হেটে রংপুর নগরীর মাহিগঞ্জ বাজারে আসেন। সেখানে পাইকারী দরে মাছ কিনে আবার বেরিয়ে পড়েন গ্রামান্তরে। বাড়ি পীরগাছার ইটাকুমারী ইউনিয়নের পশুয়া গ্রামে।

তিনি জানান, জন্মের পর থেকেই তিনি ছিলেন আমুদে প্রকৃতির। নাচ, গান, ভাড়ামি, হাস্য-কৌতুক কোনটি তার অজানা ছিল না। স্কুল আর বাড়ি দুটোইতেই তার বড় বিরক্তি ছিল। সঙ্গত কারণে এক সময় পাড়ি জমান যাত্রা দলে। সেখানে তিনি অভিনয় করেছেন, কৌতুক করে মজা দিয়েছেন। ঢোল, করতাল ইত্যাদি বাজিয়ে জীবন চালিয়েছেন।

এক সময় যাত্রা দলের আবেদন কমে গেলে জিতিন চন্দ্র রায় বেকার হয়ে পড়েন। এরপর ব্যবসায় মনোনিবেশ করার চেষ্টা করেন তিনি। নগদ টাকা না থাকায় ধারে সবজী কিনে তা ফেরী করে বিক্রি করেন। সেভাবে এখনও তিনি চালিয়ে যাচ্ছেন, শুধু তার ভারের দুই ডালিতে সবজির বদলে উঠেছে মাছ।

ভিন্ন প্রকৃতির এ মানুষটির সম্পত্তি বলতে শুধুই ২ শতক জমি এবং একটি চালা ঘর। সেখানেই অসুস্থ্য স্ত্রীকে নিয়ে তার বাস। তার ৩ ছেলে ২ মেয়ের সবাই নিজেদের সংসার নিয়ে ব্যস্ত। তবুও তিনি নিজেকে অসুখী মনে করেন না। প্রতিদিন তিনি যে আয় করেন তা দিয়েই তার সংসার চলে যায়। প্রত্যাহিক জীবনের পুরো সময়টাই তিনি নিজেকে আনন্দে ভরিয়ে রাখার চেষ্টা করেন।

এলাকার ব্যাপক পরিচিত এ মানুষটির আর একটি বৈশিষ্ট্য মানুষের বিশেষভাবে দৃষ্টি কাড়ে তা হচ্ছে, তিনি প্রায় প্রতিদিন ৩০-৩৫ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেন সম্পূর্ণ পায়ে হেটে। কখনো অন্য কোন বাহনে উঠেছেন বলে শোনা যায়নি।




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019