জয়পুরহাটে জমি নিয়ে বিরোধের জের প্রতিপক্ষের মারপিটে দম্পতি হাসপাতালে

জয়যাত্রা ডট কম : 06/12/2018

এস এম শফিকুল ইসলাম, জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাট সদর উপজেলার চকদাদরা গ্রামের একই পরিবারের জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ছকিনা ও আমজাদ হোসেন নামের এক দম্পতি চাচাদের মারপিটে গুরুতর আহত হয়েছে। তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে শহরের মোসলিমনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়,জমি নিয়ে বিরোধ মীমাংসার জন্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে চাকদাদরা গ্রামের আব্দুল আজিজ এবং তার বড় চাচার ছেলে আক্কাস আলীকে নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশে বুধবার সকাল ১১টায় সরেজমিন তদন্তের জন্য উভয়পক্ষকে হাজির থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। নোটিশের নির্দেশ মোতাবেক আব্দুল আজিজ তার ভগ্নিপতি আমজাদ ও তার ভাই আনারুলকে নিয়ে মোসলিমনগর যায়।

এ সময় তাদের প্রতিপক্ষ আক্কাস আলী তার ছেলেরা আজিজ এবং তার ভগ্নিপতি আমজাদ হোসেনকে লাঠি দিয়ে মারপিট করে। এতে আমজাদের মাথা ফেটে গেলেও আজিজ দৌড়ে প্রাণ বাঁচায়। বাধা দিতে গিয়ে আমজাদের ভাই আনারুলকেও তারা মারপিট করে। স্বামী ও ভাইকে মারপিট করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আজিজের বোন ছকিনা ছুটে এলে তাঁকে লাঠি ও লোহার পাইপ দিয়ে সাড়া শরীরে আঘাত করা হয়। এতে তার ডান পা ভেঙ্গে যায় এবং গোটা শরীরে কালো কালো আঘাতের দাগ হয়। মারপিটের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতালের সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডাঃ মুবিনুল হক বলেন,‘আহতদের মধ্যে ছকিনা বেগম নামের একজনের ডান পা ভেঙ্গে যাওয়ায় ব্যান্ডেজ করা হয়েছে। তার সাড়া শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

ছকিনার ভাই আব্দুল আজিজ বলেন,‘আমার বাবা মারা যাওয়ার পর আমাদের জমি জোর করে দখল করছে বড় চাচার ছেলে আক্কাস আলী। জমির ভাগ চাইলে আমাদের নির্যাতন করে। অথচ জমির খাজনা খারিজ সবকিছুই আমাদের নামে। ওরা জোর করেই আমাদের জমি ভোগ করছে। অভিযোগ করার পর জেলা প্রশাসন সরেজমিনে তদন্তের জন্য বুধবার হাজির থাকার জন্য নোটিশ দেয়। সেই মোতাবেক তারা চকদাদরা গ্রামে আসার পথে চাচাতো ভাই আক্কাস আলী ও তার পাঁর ছেলে আমাদের বেদম মারপিট করে। আমি এর বিচার চাই।

জয়পুরহাট সদর থানার ওসি (তদন্ত) মমিনুল হক বলেন,‘জমি নিয়ে একই পরিবারের মধ্যে মারপিটের ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায় এবং খোঁজ খবর নেয়। ওই ঘটনায় আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে এ নিয়ে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019