জয়পুরহাট বিসিকের প্লট সংকট বিনিয়োগ করতে পারছে না উদ্যোক্তারা

জয়যাত্রা ডট কম : 09/01/2019

এস এম শফিকুল ইসলাম,জয়পুরহাটঃ উদ্যোক্তা থাকলেও প্লটের অভাবে নতুন শিল্প কলকারখানা গড়ে উঠেছে না জয়পুরহাট বিসিক শিল্প নগরীতে। ফলে কর্মসংস্থানের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন জেলার বেকার যুবকরা।

জয়পুরহাট শহর থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে দাদড়া জন্তি গ্রাম এলাকায় ১৯৯১ সালে ১৫ একর জমি অধিগ্রহন করে ১৯৯৬ সালে ১শ ১১ টি প্লট তৈরি করে তা উদ্যোক্তাদের মাঝে বরাদ্দ দেওয়া হয়। শুরুর দিকে প্লট বিক্রি না হলেও পরবর্তীতে পোল্ট্রি শিল্প প্রসার ঘটায় এখানে অনেকেই পোল্ট্রি সংশ্লিষ্ট কারখানা তৈরী করেছেন এবং ২০০৭ সালে বরাদ্দকৃত সব ক’টি প্ল¬ট শেষ হয়ে যায়। বর্তমানে ১শ ১১টি প্লটে ৪৭ টি শিল্প কারকাখানা রয়েছে। এর মধ্যে পোল্ট্রি ফিড, হ্যাচারী, জৈব সার কারখানা, পোল্ট্রি মেডিসিন কারখানা, মুড়ি তৈরীর মিল, বস্তা তৈরী এবং বালতি তৈরীসহ বেশ কয়েক রকমের শিল্প কারখানা।

জয়পুরহাট চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতি আব্দুল হাকিম মন্ডল জানান, বিসিকে প্ল¬ট সংকটের কারণে অনেক নতুন উদ্যোক্তারা শিল্প কারখানা করতে পারছে না। অনেকেই আবার বাধ্য হয়ে বিসিকের পাশে জমি নিয়ে শিল্প কারখানা তৈরি করছে। এতে পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে এবং সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ব্যবসায়ীদের দাবী, জয়পুরহাটে আরেকটি বিসিক শিল্পনগরী করা হলে এক দিকে সরকারের রাজস্ব বাড়বে, অন্য দিকে স্থানীয় অর্থনীতির চাকাও থাকবে সচল।
জয়পুরহাট চেম্বারের পরিচালক আনোয়ারুল হক আনু জানান, জয়পুরহাটের শিল্প কলকারখানা তৈরীর প্রধান অন্তরায় হলো বিসিকের প্লট সমস্যা এরপর গ্যাস না থাকা এবং পল্লী বিদ্যু সমিতির নিকট থেকে চড়া মূল্যে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়া এবং বিল পরিশোধ করা। এসব সমস্যা দূর হলে জয়পুরহাটে অনেক শিল্প কারখানা গড়ে উঠতো। এতে করে জয়পুরহাট দেশীয় অর্থনীতিতে ভালো অবদান রাখতে পারতো।

জয়পুরহাটের ব্যবসায়ী সামস মতিন, কালাইয়ের আঃ কাদের মন্ডল, আক্কেলপুরের ব্যবসায়ী আঃ মোত্তালেব মিলন জানান, তারা ক্ষুদ্র উদ্যেক্তা হিসাবে ছোট ছোট শিল্পকারখানা তৈরী করতে চান কিন্তু বিসিকে নতুন প্ল¬ট না পাওয়ায় তারা উদ্যোগ নিতে পারছেননা। আর যারা শিল্প কারখানা তৈরী করছেন তাদের কারখানা সম্প্রসারনের জন্য আরো প্ল¬ট দরকার। প্লট সংকটে তারা কারখানা সম্প্রসারণ করতে পারছেন না।

জয়পুরহাট বিসিকের উপ- ব্যবস্থাপক (ভারপ্রাপ্ত) আকতারুল আলম চৌধুরী জানান, বিসিকে প্লটের অনেক চাহিদা রয়েছে। এই এলাকার অর্থনীতি কৃষি ভিত্তিক হওয়ায় পোল্ট্রি, হাস-মুরগি ও মছের খাদ্য, জৈব্য সার ও ঔষধ কারখানাসহ ছোট-বড় প্রায় অর্ধ শত কল-কারখানা রয়েছে। এখানে প্ল¬ট না থাকায় নতুন উদ্যোক্তারা শিল্প কারখানা করতে পারছেন না। আমরা ইতোমধ্যেই মধ্যে সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছি এবং জয়পুরহাট-বগুড়া সড়কের বটতলী এলাকায় আরো একটি শিল্প নগরী তৈরি করা যেতে পারে বলে সুপারিশ করেছি।

জয়পুরহাটে নতুন করে জমি নিয়ে আরেকটি বিসিক শিল্পনগরী করা গেলে এখানকার নতুন উদ্যোক্তারা যেমন শিল্পকারখানা তৈরি করতে পারবেন. তেমনি বেকারত্বও দূর হবে এবং সরকারের রাজস্ব বাড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লি¬ষ্টরা।




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019