চালের দাম বাড়ার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই- খাদ্যমন্ত্রী

জয়যাত্রা ডট কম : 10/01/2019

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি চাল ও খাদ্য মজুদ আছে। চালের দাম বাড়ার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে অনেক আগে। কিন্তু তারপরেও কেন চালের দাম বাড়ছে তা খতিয়ে দেখা হবে। বললেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।
আজ বৃহস্পতিবার খাদ্য অধিদপ্তরে চাল ব্যবসায়ী সমিতি, আড়ৎদার ও অটো চাল মিল মালিকদের সঙ্গে মতবিনিয়ময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাচনের পরপরই হঠাৎ কয়েক দফায় চালের দাম প্রতি কেজি ৫ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। কি কারণে চালের দাম বাড়ছে তা পর্যালোচনা করতেই চাল ব্যবসায়ী, মিল মালিক ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে কৃষক ধান উৎপাদন করে, সেই ধান প্রক্রিয়াজাত করে খুচরা বিক্রেতার কাছে পৌঁছে দেয় মিল মালিকরা। আর সেই খুচরা ব্যবসায়ীরা সাধারণ ভোক্তাদের কাছে পৌঁছে দেয়। এখানে তিন স্তরে মধ্যস্থতাকারী থাকে। চালের দাম বাড়লে এই তিন পর্যায়ের অংশগ্রহণকারীদের দায় নিতে হবে।

তিনি বলেন, আমি বিষয়টি গণমাধ্যমে দেখার সঙ্গে সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে সংশ্লিষ্টদের ডেকেছি। আমরা এখানে বিস্তারিত কথা বলব। এর সমাধানের উপায় খুঁজে বের করব। কারণ বিষয়টি একেবারেই সাধারণ মানুষের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বলেন, যে দেশে খাদ্য মজুদ থাকে সেই দেশে হুটহাট খাদ্যের দাম বৃদ্ধি পেতে পারে না। কেন দাম বাড়ছে এটি আমাদের খতিয়ে দেখতে হবে। যেকোন মূল্যে চালের দাম স্বাভাবিক রাখতে হবে।

সভায় মিল মালিকরা জানান, অটো রাইস মিল মালিকরা ৪৭ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি করে। কিন্তু সেই চাল ঢাকায় কিভাবে প্রতি কেজি ৭০ থেকে ৭৮ টাকা দামে বিক্রি হয়। এই বিষয়ের সাথে মিল মালিকদের কোনো হাত নেই। তাদের দোষারোপ করা যাবে না।




সর্বশেষ সংবাদ

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মো. হাফিজউদ্দিন
সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019