নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরে দুদকের অভিযান

জয়যাত্রা ডট কম : 15/04/2019


নিজস্ব প্রতিবেদক:
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ এর ড্রেজিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য টেন্ডার প্রক্রিয়ায় অনিয়ম
এবং নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরে নতুন জাহাজের নকশা অনুমোদন, সার্ভে সার্টিফিকেট প্রদানে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক)

কর্মকর্তারা। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে অভিযান চালিয়েছে দুদক এনফোর্সমেন্ট টিম। দুদক টিম অভিযানকালে জানতে পারে, ড্রেজিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ১০ লাখ টাকার অতিরিক্ত ব্যয়ের জন্য ই-টেন্ডারিং পদ্ধতি থাকলেও, ১০ লাখ টাকার নিচে ম্যানুয়ালি টেন্ডার কার্যক্রম পরিচালিত হয় । ফলে এক্ষেত্রে অনিয়মের সুযোগ রয়েছে বলে প্রতীয়মান হয়। টিম সকল ক্ষেত্রেই ই-টেন্ডারিং পদ্ধতি অনুসরণ করার সুপারিশ প্রদান করে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান, নতুন জাহাজের নকশা অনুমোদনে অনিয়মের অভিযোগ অনুসন্ধানে দুদক টিম জানতে পারে, ২০১৮ সালে ২২০টি নকশা প্রদানের সিদ্ধান্ত থাকলেও নতুন নকশা অনুমোদিত হয়েছে ৩৪৫টি। এক্ষেত্রে অনিয়ম হয়েছে মর্মে টিম প্রাথমিকভাবে অভিমত ব্যক্ত করে।

এছাড়াও আবেদন বিবেচনার ক্ষেত্রে ক্রম না মেনে যারা পরবর্তীতে আবেদন করেছেন তাদেরও ঘুষ-দুর্নীতির বিনিময়ে তাদের আগে নকশা পাশ করা হয়েছে বলে জানা যায়।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান, জাহাজের সার্ভে সার্টিফিকেট প্রদানের ক্ষেত্রে অবৈধ অর্থ অর্জনের উদ্দেশ্যে কালক্ষেপণ করা হয় মর্মে দুদকের অনুসন্ধানে জানা যায়। সার্ভেয়ারদের কোন রিপোর্ট প্রদানের বাধ্যবাধকতা না থাকায় তারা এ বিষয়ে স্বেচ্ছাচারিতার আশ্রয় নেন।

দুদক টিম, বিআইডব্লিউ-এর চিফ ইঞ্জিনিয়ারকে সুপারিশ প্রদান করে যে, সার্ভেয়ারদের সাপ্তাহিক ও মাসিক ভিত্তিতে রিপোর্ট প্রদান করতে হবে।

এদিকে বিএসটিআই বিভিন্ন কার্যক্রমে অনিয়ম খতিয়ে দেখতে বিএসটিআই, প্রধান কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করে দুদক এনফোর্সমেন্ট টিম। টিম উক্ত কার্যালয়ের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে।

এদিকে বরগুনায় ঝুঁকিপূর্ণ প্রাথমিক বিদ্যালয় সমূহে শিক্ষার্থীদের জীবনের ঝুঁকিতে শ্রেণি কার্যক্রম চলছে এমন অভিযোগ অনুসন্ধানে দুদক এনফোর্সমেন্ট টিম অভিযান পরিচালনা করে। দুদক টিম নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি এবং উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সাথে সাক্ষাৎ করে।

তিনি জানান, ঝুঁকিপূর্ণ ভবনসমূহের তালিকা নির্ণয়ে দুজন উপসহকারী প্রকৌশলী এবং উপজেলা শিক্ষা অফিসের প্রতিনিধির সমন্বয়ে একটি টিম গঠন করা হয়েছে। টিম আগামী এক সপ্তাহের ভিতর ঝুঁকিপূর্ণ ভবনসমূহের তালিকা প্রণয়নপূর্বক একটি প্রতিবেদন পেশ করবে এবং উক্ত প্রতিবেদনে যে সকল ভবন মারাত্মকভাবে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত হবে, সেই ভবনগুলোতে শ্রেণিপাঠ বন্ধ করে তাৎক্ষণিকভাবে সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হবে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান, দিনাজপুর সদর ভূমি অফিসে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করে দুদক টিম। টিম সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে জানান। উক্ত অফিসের যে সকল কর্মচারী সেবাপ্রার্থীদের হয়রানি করেন তাদের সতর্ক করা হয়।

সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলা হিসাবরক্ষণ অফিসে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে একটি অভিযান পরিচালনা করে দুদক টিম। টিম সরেজমিন অভিযানে জানতে পারে, উক্ত অফিসে বেতন বিল সহ বিভিন্ন বিল প্রক্রিয়াকরণে যে সময় লাগার কথা তার চেয়ে বেশি সময় লাগে। # একে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019