ভোলায় ছেলে ধরা গুজব ছড়ানো সহিদের ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন

জয়যাত্রা ডট কম : 11/07/2019

নুরে আলম ফয়জুল্লাহ,ভোলা প্রতিনিধি ॥ স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে ফোন কল ও গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে গলাকাটা ও ছেলে ধরার বিষয়ে ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে ভোলা জেলার সাধারন মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া আব্দুল সহিদ হাওলাদারকে (২৪) বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ। আগামী সপ্তাহ এ মামলার শুনানী হবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ভোলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এসময় তিনি বলেন, আমরা গত বুধবার বিকেলে ভোলা জেলায় গুজব ছড়ানো দলের আব্দুল সহিদ হাওলাদারকে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্ট ফোনসহ আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে দোষ স্বীকার করে। এবং তার এ কাজের সাথে আরো ৩ জন রয়েছে। ওই তিন জনের বাড়ি ভোলা জেলায়। এদের মধ্যে একজন ডুবাইতে আছেন। অন্য দু’জন সহিদকে আটকের পরে অন্যত্র পালিয়ে আছেন। মামলার সার্থে আমরা সহিদের সঙ্গে তিন জনের নাম ও পরিচয় এখন বলতে পারছিনা। তবে তাদের সবাইকে আটককের চেষ্টা চলছে।

আব্দুল সহিদ হাওলাদারের বিরুদ্ধে চরফ্যাশন থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এ ধারায় মামলা দায়ের করে চরফ্যাশন উপজেলার জেলা অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতে হাজির করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ভোলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ শাফীন মাহমুদ, সাব্বির হোসেন, গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মোঃ শহিদুল ইসলাম, চরফ্যাশন থানার ওসি সামছুল আরেফিনসহ ভোলার কর্মরত বিভিন্ন টেলিভিশন ও দৈনিক পত্রিকার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত কয়েক দিন ধরে ভোলা জেলা মানুষকে ফোন কল ও গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে ফেসবুক ও ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে একটি চক্র পদ্মা সেতুর জন্য মানুষের গলা লাগবে এজন্য গলাকাটা বাহিনী নেমেছে। তারা শিশুদের ধরে নিয়ে গলাকাটছে এমন পোষ্ট ও গুজন ছড়িয়ে মানুষকে আতংঙ্কিত করেছে। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ গতকাল বুধবার চরফ্যাশন উপজেলার চর মাদ্রাজ এলাকা থেকে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্ট ফোনসহ আব্দুল সহিদ হাওলাদার নামে ওই চক্রের একজনকে আটক করে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019