• প্রচ্ছদ » জাতীয় » ঈদ আনন্দ নানা বয়সী মানুষের ঢল রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে


ঈদ আনন্দ নানা বয়সী মানুষের ঢল রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে

জয়যাত্রা ডট কম : 13/08/2019


আহসান হাবিব নাহিদ:
রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো এখন ঈদ আনন্দে জমে উঠেছে। পরিণত হয়েছে উৎসবমুখর পরিবেশ। পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে পরিবার-পরিজন নিয়ে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ভিড় জমিয়েছেন বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে। ওদিকে রাস্তা ফাঁকা পেয়ে বন্ধু-বান্ধব নিয়ে রিক্সা ভ্রমণ আবার ঘোড়ার গাড়িতে চরে ঘুরে-বেড়াচ্ছেন অনেকেই। মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) ঈদের দ্বিতীয় দিনে রাজধানীর বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্র ঘুরে এ দৃশ্য দেখা যায়।

নগরীর হাতিরঝিল, ঢাকা চিড়িয়াখানা, জাতীয় জাদুঘর, আহসান মঞ্জিল, শ্যামলী শিশু মেলায় প্রচণ্ড ভিড়। শ্যামলীর শিশুমেলায় দায়িত্বরত মোহাম্মদ শামসুল আলম দৈনিক জাগরণকে বলেন, আজ মঙ্গলবার( ১৩ আগস্ট) সকালে কিছুটা ভিড় কম থাকলেও বেলা গড়ার সাথে সাথে মানুষর ঢল নামছে। কেন্দ্রীয় শিশুপার্ক বন্ধ থাকায় দুই ঈদে দর্শনার্থীর সংখ্যা শিশু মেলায় বেশি। তিনি জানান, শিশু মেলায় শিশুদের জন্য ৪০টির বেশি বিভিন্ন ধরনের রাইড রয়েছে। বড়দের জন্যও রাইড যুক্ত করা হয়েছে।

যমুনা ফিউচার পার্ক শপিং মলের অ্যামিউমেন্ট পার্কেও দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। শিশুদের পাশাপাশি বড়দের রাইড থাকায় কিশোর-কিশোরীদের উপস্থিতি বেশি। ফিউচার পার্কের ভেতরে কিডস্ জোন খোলা থাকায় শিশুদের বিনোদনে বাড়তি মাত্রা যোগ হয়েছে। কেউ কেউ আসছেন বড়পর্দায় সিনেমা দেখতে।

রাজধানীর পান্থপথে বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে সিনেমা ও কিডস্ জোন খোলা থাকায় অনেকেই এখানে বেড়াতে এসেছেন। বাচ্চাদের নিয়ে খেলাধুলায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন অনেকেই। আবার কেউ আসছেন সিনেমা দেখতে।

ঢাকা চিড়িয়াখানা লোকে লোকারণ্য। নানা ধরনের প্রাণীদের সঙ্গে শিশুদের পরিচিত করতে ব্যস্ত ছিলেন অভিভাবকরা।

কিশোর-কিশোরীদের বেড়ানোর জন্য ন্যাশনাল বোটানিক্যাল গার্ডেন সব সময়ই পছন্দের। ঈদের ছুটিতে দূর-দূরান্ত থেকেও অনেকে বন্ধুদের নিয়ে বেড়াতে এসেছেন এখানে। পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেন, মোহাম্মদপুরের বসিলা ব্রিজ, রমনা পার্ক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে এবং পেছনে মানুষের উপচেপড়া ভিড়।

বিকেল হতেই জমজমাট হয়ে ওঠে নগরীর প্রানকেন্দ্রের হাতিরঝিল। ইট-পাথরের এ ব্যস্ত শহরে ক্লান্তিকর নাগরিক জীবনে গেল কয়েক বছরে হাতিরঝিল হয়ে উঠেছে এক মনোরম বিনোদন কেন্দ্র। নির্মল বাতাসে ঘুরে বেড়ানো আর ছবি তোলা আর ঝিলের পানিতে আলোর নাচন সঙ্গে থিম সং শুনতে দূর-দূরান্ত থেকে ভিড় করেন বহু ভ্রমণপ্রিয় মানুষ।

গত কয়েক বছরে রাজধানীর পূর্বাচল প্রজেক্ট সংলগ্ন ৩০০ফিট এলাকা, আশুলিয়ায় তুরাগ তীর ঘেঁষে গড়ে ওঠা ছোটখাটো পার্কগুলোতেও দর্শনার্থীদের ভিড় বেড়েছে। দিয়াবাড়ি এবং এ সংলগ্ন বৃন্দাবন এলাকাও ঘুরে বেড়াচ্ছেন অনেকেই।

ঢাকার অদূরে থিমপার্ক ফ্যান্টাসি কিংডম ও নন্দন পার্ক তো আছেই।

প্রতিবছর ঈদকে কেন্দ্র করে পুরো সপ্তাহের জন্য আয়োজন করে থাকে এই দুই পার্ক কর্তৃপক্ষ। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ঈদের দ্বিতীয় দিন সকাল ১০টা থেকে রাত পর্যন্ত ফ্যান্টাসি কিংডম খোলা থাকবে পরের সাতদিন পর্যন্ত।

ঈদের ছুটিকে আরও আনন্দঘন করে তুলতে নদন্দপার্ক, সাগুফতায় ঘুরে বেড়াতে গিয়েছেন অনেকে। শুধু জনপ্রিয় এসব বিনোদনকেন্দ্রই নয়, ঈদে রাজধানীর ঐতিহাসিক স্থানগুলোতেও ছিল দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019