• প্রচ্ছদ » অন্যরকম » নগরীর বিভিন্ন হাসপাতালের ভেতরেই ভয়ঙ্কর এডিস মশার লার্ভা : মাঠে ডিএনসিসি


নগরীর বিভিন্ন হাসপাতালের ভেতরেই ভয়ঙ্কর এডিস মশার লার্ভা : মাঠে ডিএনসিসি

জয়যাত্রা ডট কম : 14/08/2019


আবুল কাশেম:
রাজধানীর উত্তরাসহ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় নামী দামী সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল এবং প্রভাবশালীদের স্থাপনা ও প্রতিষ্ঠানে ভেতরেই ভয়ঙ্কর এডিস মশার লার্ভা রয়েছে। আর ওইসব লার্ভা থেকেই প্রতিদিন উৎপন্ন হচ্ছে হাজার হাজার এডিস মশা।

প্রতিদিনই রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। এমনকি বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যাও। ফলে এডিস মশা উৎপাদনের ফ্যাক্টরী ওইসব হাসপাতালে কর্মরত ডাক্তার ,নার্স ,কর্মকর্তা- কর্মচারী, রোগী এবং রোগীর অভিভাবকরাই ডেঙ্গুর ঝুঁকিতে রয়েছেন।

সরেজমিন খোঁজ নিয়ে হাসপাতালের ভেতরেই এডিস মশার লার্ভার ভয়ঙ্কর তথ্য পাওয়া যায়। সরকারি হাসপাতাল পুরান ঢাকায় মিটফোর্ড হাসপাতাল এডিস মশার ঝুকিতে। ইমামদের সাথে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকনের মতবিনিময় এবং বিনামূল্যে অ্যারোসেল স্প্রে বিতরণ অনুষ্ঠানে মিটফোর্ড হাসপাতালের ভেতরে এডিস মশার উৎপাতের বিষয়টি উল্লেখ করনে এক ইমাম। এমনকি ওই হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সরাই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন বলেও মেয়রকে জানানো হয়।

এদিকে গত ৮ আগস্ট উত্তরায় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারের নেতৃত্বে কয়েকটি হাসপাতালে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়।

এরমধ্যে কবি জসিমুদ্দিন রোডে পপুলার হাসপাতালের বেইজমেন্টে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় প্রতিষ্ঠানটিকে ২ লাখ টাকা, সাবেক রাষ্ট্রপতি বি চৌধুরীর মালিকানাধীন উইমেন মেডিকেল কলেজের ভিতরের ড্রেনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, গরিব নেওয়াজ এভিনিউর লুবনা হাসপাতালে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ৩০ হাজার টাকা এবং উত্তরা ৪নং সেক্টরে জাপান কাগুচি হাসপাতালে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এইসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এএসএম মামুন।

তিনি আরো জানান, হাসপাতালের পাশাপাশি প্রভাবশালী লোকজনের বাসা বাড়ি ও প্রতিষ্ঠানের ভেতরেও এডিস মশার লার্ভা ও এডিস মশার বংশবিস্তারের উপযোগী পরিবেশ পাওয়া যাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে মহাখালী অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেমায়েত হোসেন বারিধারার ১১টি বাড়ির মালিককে মোট ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন।

ডিএনসিসি কারওয়ান বাজার অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মীর নাহিদ আহসান ৭ বাড়ি কনস্ট্রাকশন সাইটের ভিতরে এডিস মশার লার্ভা খুজে পান। তিনি প্রতিষ্ঠানটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এই ধরনের আরো অনেক তথ্য ঢাকা দুই সিটিতেই রয়েছে। আর দুই সিটির একাধিক ভ্রাম্যমান আদালত প্রতিদিন এডিস মশার লার্ভা ধ্বংস এবং সংশ্লিষ্ট স্থাপনার মালিকদের জরিমানা করেই যাচ্ছেন।

এদিকে ডিএনসিসির মেয়রের নির্দেশে উত্তরায় ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জনাব আফছার উদ্দিন খান, ৪ নং সেক্টর কল্যাণ সমিতির সভাপতির মেজর আনিসুর রহমান (অবঃ) , বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব জনাব খান মোহম্মদ বেলাল , ডিএনসিসির কর কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী মিয়ার নির্দেশনার আলোকে বিভিন্ন সেক্টর ও এলাকার ন্যায় ৪ নং সেক্টরে মশা নিধন জোরদার কার্যক্রম করা হয়েছে। ডেঙ্গুর বিরুদ্ধে সচেতনা কার্যক্রমের উদ্বোধনে পর বিভিন্ন রোড ভিত্তিক মশা নিধনকারিদের মাঝে দায়িত্ব বন্টন করা হচ্ছে ।

এছাড়াও ডিএনসিসির উপ প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন আলীর সার্বিক সহযোগতায় রাজস্ব আদায় এরং ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রনে মাঠে কাজ করছেন মিয়া মিরপুরে করকর্মকর্তা সানোয়া হোসেন, মিজানুর রহমান, কাওরানবাজারে মহিউদ্দিন, মহাখালীতে তনলিম উদ্দিন এবং রাজস্ব বিভাগের কর্মচারীরা। # একে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019