• প্রচ্ছদ » খেলা » মিরপুর ১৩ নম্বরে শিশু কিশোরদের খেলার মাঠ প্রভাবশালীদের দখলে


মিরপুর ১৩ নম্বরে শিশু কিশোরদের খেলার মাঠ প্রভাবশালীদের দখলে

জয়যাত্রা ডট কম : 26/08/2019

আবুল কাশেম:
রাজধানীর মিরপুর ১৩ নম্বরে উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বড় খেলার মাঠ ও শিশু পার্কটি স্থানীয় প্রভাবশালীদের দখলে। এলাকার শিশু কিশোরদের খেলা ধূলার অধিকার টুকু কেড়ে নিয়েছে ওই প্রভাবশালীরা।

সরেজমিন পরিদশনে দেখা যায়, একজনে স্থাপনা তৈরি ও নির্মাণ সামগ্রি ফেলে রেখেছেন। আরেকজন খেলার মােঠ সরাসরি পাশের গলির নির্মাণাধীন এক ভবনের ময়লা পানি সংযোগ দিয়েছেন। দেওলায়ার হোসেন তার নির্মাণাধীন ভবনের জমানো ময়লাপানি মাঠ সংলগ্ন কাঁচা পুরো রাস্তার কেটে মাঠে ছেড়েছেন। ফলে পুরো মাঠে সবসময় ময়লা পানি জমে থাকে।

আরো দেখা যায়, মাঠের একটি অংশ দীর্ঘদিন যাবৎ মায়শা এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক সেমিপাকা ও টিনের স্থাপনা তৈরি করে লোহার রডসহ নির্মাণ সামগ্রি ফেলে রেখেছেন। ময়লা আর্বজনা বৃষ্টির পানি জমে সেখানে প্রচুর মশা উৎপন্ন হচ্ছে। সেই সাথে পুরো এলাকার পরিবেশ মারাত্নকভাবে ধ্বংস হচ্ছে।

এই খেলার মাঠটি ডিএনসিসির প্যানেল মেয়র ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জামাল মোস্তফার কার্যালয়ের পাশের রোডে । বিশাল খেলার মাঠটির ৩টি অংশে বিভক্ত রয়েছে।
একটি অংশে ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, ১৩ নম্বর টিনসেড কলোনী আওয়ামী লীগ কার্যালয় এবং হাজী দীন মোহাম্মদ ক্রিকেট একাডেমির কার্যালয় রয়েছে।

মাঠের একাংশে এলাকার ছেলেদের ক্রিকেট খেলার জন্য পৃথক স্থান রাখা হয়েছে। এরপরই শিশু- কিশোরদের খেলা ধূলার জন্য নির্ধারিত পার্কও স্থানটি। এরপর রয়েছে শহীদ মিনার এবং এলাকারবাসীর জন্য বেশ কিছু উন্মুক্ত (ফাকা) জায়গা । কিন্তু শহীদ মিনারের সামন থেকে ফাকা জায়গাটি টানা আড়াই বছর যাবৎ ‘মায়শা এন্টারপ্রাইজের’ মালিকের স্থাপনা এবং বিভিন্ন আইটেমের নির্মাণ সামগ্রি ফেলে রাখা হয়েছে।

এছাড়াও খেলার মাঠ, পাশের ড্রেন এবং রাস্তায় সব সময় ময়লা পানি, আর্বজনা জমে থাকে। কিন্তু অবস্থা দৃষ্ঠিতে মনে হচ্ছে এসব দেখার যেন কেউ নেই।

এদিকে এসব বিষয়ে ডিএনসিসির প্যানেল মেয়র ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জামাল মোস্তফার সাথে সরাসরি এই প্রতিবেদকের কথা হয়। তিনি বলেন, শিশু- কিশোরদের খেলার মাঠে যারা সরাসরি বাসা বাড়ির পানি ছেড়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কারণ খেলার মাঠ নষ্ট করার অধিকার কারো নেই।

তিনি এই বিষয়টি দেখার জন্য তার লোকজনকে নির্দেশ দেন। একইসাথে মাঠটি নিয়মিত পরিস্কার রাখতে পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

প্যানেল মেয়র বলেন, আশের রাস্তাসহ পুরো খেলার মাঠ ও শিশু পার্কটিকে আধুনিকায়ন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। একটি বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমে কাজটি হচ্ছে। ইতোমধ্যে আধুনিক নকশা তৈরি করা হয়েছে। আগামি ২/৩ মাসের মধ্যেই কাজ শুরু হচ্ছে। # একে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019