• প্রচ্ছদ » আইন-আদালত » মিরপুরে ১১ নম্বরে ডায়িং ফ্যাক্টরীতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দুদকের অভিযান


মিরপুরে ১১ নম্বরে ডায়িং ফ্যাক্টরীতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দুদকের অভিযান

জয়যাত্রা ডট কম : 03/09/2019


নিজস্ব প্রতিবেদক :
রাজধানীর মিরপুরে ১১ নম্বরে কয়েকটি ডায়িং ফ্যাক্টরী অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদান করে সরকারের রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক।

মঙ্গলবার (৩ সেপ্টম্বর) দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে হটলাইন -১০৬ অভিযোগ আসে, মিরপুর -১১ -এ অবস্থিত বিহারী ক্যাম্পে বেশ কয়েকটি ডায়িং ফ্যাক্টরী অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়ে ব্যবহারের ফলে মিরপুরের অধিবাসীগণ গ্যাস হতে বঞ্চিত হচ্ছে। পরিচালিত হয়েছে। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদক প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফাতেমা সরকারের নেতৃত্বে একটি এনফোর্সমেন্ট টিম অভিযান পরিচালনা করে। দুদক টিম তিতাস গ্যাস জোন -১২ (মিরপুর) -এর পাঁচজন প্রতিনিধির সমন্বয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পায়।

টিম দেখে, কোনরূপ অনুমোদন ছাড়াই পাঁচটি ফ্যাক্টরিতে লাগামহীন ভাবে অবৈধ সংযোগের মাধ্যমে গ্যাস ব্যবহার করা হছে। টিম উক্ত পাঁচ ফ্যাক্টরিতে ব্যবহৃত গ্যাস সংযোগগুলো বিচ্ছিন্ন করে। তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ দুদক টিমকে আশ্বস্ত করে, রাষ্ট্রীয় স¤পদের এ অপব্যবহার রোধে উল্লিখিত এলাকাসমূহে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এদিকে দুদকের অপর টিম ঝালকাঠি বিআরটিএ অফিসে অভিযান চালিয়ে ব্যাপক অনিয়মের প্রমাণ পেয়েছে । নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সমন্বিত জেলা কার্যালয়, বরিশাল -এর সহকারী পরিচালক মোঃ হাফিজুর রহমান -এর নেতৃত্বে আজ এ অভিযান পরিচালিত হয়।

সরেজমিন অভিযানে টিম উক্ত দপ্তরে যথানিয়মে পরীক্ষা ব্যতিরেকেই লাইসেন্স প্রদান করা হয় এরূপ তথ্য পায়। ফলে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলা (পিরোজপুর, বরিশাল, বরগুনা) থেকেও লাইসেন্স প্রাপ্তির জন্য অনেকে উক্ত অফিসে আসেন।

এছাড়াও অর্থের বিনিময়ে অত্যন্ত তড়িঘড়ি করে শিক্ষানবিস লাইসেন্স দেয়া হচ্ছে এমন উদাহরণও পায় দুদক টিম। উক্ত অফিসের ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগের বিষয়ে বিস্তারিত অনুসন্ধানের অনুমোদন চেয়ে কমিশনের প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে দুদক টিম।

এদিকে মিটারে প্রদর্শিত বিলের চেয়ে অতিরিক্ত বিল প্রদান করে গ্রাহক হয়রানির অভিযোগে টাঙ্গাইল জেলার ভুয়াপুর উপজেলার বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট বোর্ড (বিপিডিবি) -এ অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক।

দুদক অভিযোগ কেন্দ্র আগত অভিযোগের প্রেক্ষিতে সমন্বিত জেলা কার্যালয় টাঙ্গাইল এর উপপরিচালক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে একটি এনফোর্সমেন্ট গত ২ সেপ্টেম্বর এ অভিযান পরিচালনা করে। সরেজমিন অভিযানে অভিযোগের সত্যতা পায় দুদক টিম।

টিম জানতে পারে, উক্ত এলাকার অধিকাংশ মিটার রিডারই যথানিয়মে মিটার চেক না করে বাড়তি বিল প্রদান করে, এমনকি কিছু অসাধু মিটার রিডার অবৈধ অর্থের বিনিময়ে বিল কমিয়ে দেন এরূপ অভিযোগও পাওয়া যায়।

দুদক টিমের সুপারিশের প্রেক্ষিতে নির্বাহী প্রকৌশলী, বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ, ভুয়াপুর, টাঙ্গাইল অবিলম্বে তদন্ত করে দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে মর্মে নিশ্চয়তা প্রদান করেন।

এছাড়াও স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে জলমহাল দখলের অভিযোগে, পাসপোর্ট প্রদানের ঘুষ দাবি ও গ্রাহক হয়রানির অভিযোগে ও ভুয়া রেকর্ডপত্র সৃজনপূর্বক দলিল রেজিস্ট্রি করে ঘুষ দাবীর অভিযোগে যথাক্রমে সমন্বিত জেলা কার্যালয়, হবিগঞ্জ ও সমন্বিত জেলা কার্যালয়, রংপুর হতে ৩টি এনফোর্সমেন্ট অভিযান পরিচালিত হয়েছে। # একে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019