• প্রচ্ছদ » অন্যরকম » কার স্বার্থে ঝিনাইদহ শহরের পৌরপার্কটি ভেঙ্গে বহুতল মার্কেট নির্মাণ হচ্ছে !


কার স্বার্থে ঝিনাইদহ শহরের পৌরপার্কটি ভেঙ্গে বহুতল মার্কেট নির্মাণ হচ্ছে !

জয়যাত্রা ডট কম : 04/09/2019


সাজেদুল ইসলাম নয়ন, ( ঝিনাইদহ পৌরসভা) :
ঝিনাইদহ শহরবাসীর বিনোদনের জন্য একমাত্র পার্কটি ১৯৬১ সালে ২ একর ১৮ শতাংশ জায়গার উপর নির্মিত হয়। এ পার্কটি ছাড়া ঝিনাইদহে আর কোনো সরকারি পার্ক নেই। প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, কার স্বার্থে পার্ক ভেঙ্গে বহুতল মার্কেট নির্মাণ করা হচ্ছে।

ইতোমধ্যে পার্ক ভেঙ্গে মার্কেট নির্মাণের প্রতিবাদে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্ত্বরে স্থানীয় লোকজন মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

শহরের প্রাণকেন্দ্রে পার্কটি ভেঙ্গে সেখানে ১০ তলা মার্কেট নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। সর্বশেষ ২০১১ সালের ১৩ মার্চ ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচন হয়।

সম্প্রতি ঝিনাইদহ পৌর শিশু পার্কের সবকিছু সরিয়ে নিয়েছে পৌরসভা কতৃর্পক্ষ। বুলডোজার দিয়ে ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে সব রাইডসহ গাছপালা। মার্কেট নির্মাণের জন্য মাটি দিয়ে ভরাট করা হচ্ছে পার্কের জায়গা।

মেয়াদ শেষ হলেও গত সাড়ে ৩ বছর বর্তমান পৌর জনপ্রতিনিধিরা গায়ের জোরে ক্ষমতা দখল করে রেখেছেন। পার্কের নামে যে সরকারি দলিল করে দেওয়া সেখানে স্পষ্টত উল্লেখ রয়েছে, পার্কের জায়গায় কোনো স্থাপনা নির্মাণ করা যাবে না।

এছাড়া এই জায়গা কাউকে লিজও দেয়া যাবে না। তারপরও কিভাবে কার অনুমতিতে এই পার্ক ভেঙ্গে মার্কেট নির্মাণ করা হচ্ছে তা আমরা জানতে চাই।

শহরের প্রাণ কেন্দ্রে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী সড়কে ১৯৬১ সালে পাবলিক পার্ক স্থাপন করেন তৎকালীন ঝিনাইদহ সাবডিভিশনার অফিসার কেএম রব্বানী।

পরবর্তীতে ঝিনাইদহ ডেভেলপমেন্ট কমিটির পক্ষে সভাপতি কেএম রব্বানী ১৯৬৩ সালে ঝিনাইদহ টাউন কমিটিকে এ পার্কের উন্নতি পরিচালনা ও সমগ্র দায়িত্ব দেন। সরকারের বেশকিছু লিখিত শর্ত সাপেক্ষে ঝিনাইদহ টাউন কমিটির চেয়ারম্যান এসএম মতলুবুর রহমান সেসময় দায়িত্ব গ্রহণ করায় পার্কের নামে জমি দলিল করে দেয়া হয়।

শর্তের মধ্যে বলা হয়, এই লিখিত সম্পত্তি ঝিনাইদহ টাউন কমিটি বা স্থলাভিষিক্তগণ কেবলমাত্র পার্ক হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। পার্কের জন্য ক্ষতিকারক কোনো কাজ করতে পারবেন না। পার্কের উন্নয়ন বাদে কোনো পাকা স্থাপনা করা যাবে না।

এই সম্পত্তি দায় বিক্রয় বা হস্তান্তর করা যাবে না। শর্ত খেলাপ করলে দ্বিতীয় পক্ষের নিকট থেকে প্রথম পক্ষ সম্পত্তি দখলে নিতে পারবে। # একে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019