দুর্নীতি বন্ধ করতেই হবে : রাষ্ট্রপতি

জয়যাত্রা ডট কম : 09/10/2019


জয়যাত্রা ডেস্ক : দেশে ব্যাপক হারে দুর্নীতি বেড়ে যাওয়ায় তা নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে এর লাগাম টেনে ধরার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আজ বুধবার কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে স্বাধীনতা ভাস্কর্য উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এ আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি দেশের সার্বিক অবস্থার কথা বর্ণনা করে বলেন, দেশে যেমন ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে, এই উন্নয়নের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দুর্নীতিও। এর লাগাম টেনে ধরতে হবে। ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামী লীগ যারাই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকুক না কেন সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। কাউকে ছাড়া দেওয়া হবে না।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার নিজের ঘর থেকে দুর্নীতি বিরোধী যে অভিযান চালাচ্ছে তা অব্যাহত রাখতে হবে। সমাজ থেকে দুর্নীতি উচ্ছেদ করতে হবে। নইলে এতো এতো উন্নয়নের সুফল দেশবাশীর কাছে পৌঁছাবে না। উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি টেকসই হবে না।

এদিন বিকেল তিনটায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সরকারি কলেজে আয়োজিত সুধী সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন কিশোরগঞ্জ-৩ (করিমগঞ্জ-তাড়াইল) আসনের সংসদ সদস্য মো. মুজিবুল হক চুন্নু ও তাড়াইল উপজেলা চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম ভূঁইয়া শাহীন।

স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. মুজিবুল হক চুন্নুর সভাপতিত্বে ও তাড়াইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুল হক ভূঁইয়া মোতাহারের পরিচালনায় বৃষ্টিবিঘ্নিত সুধী সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য এম এ আফজাল, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ আফজল, কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ, তাড়াইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন লাকীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন।

প্রধান অতিথির ভাষণে রাষ্ট্রপতি তার রাজনৈতিক জীবনের স্মৃতিচারণ করে বলেন, ১৯৭০ সালে নির্বাচনের আগে তাড়াইলের লোকজন আমাকে ভালোবেসে ‘ভাটির শার্দুল’ উপাধি দিয়েছিলেন। এজন্য তাড়াইলবাসীর কাছে আমি কৃতজ্ঞ। ওই সময় এ উপজেলা নিয়ে আমার নির্বাচনী এলাকা ছিল। তখন এ এলাকার মানুষ আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন।

তিনি তখন এলাকার রাজনৈতিক সহকর্মীদের স্মরণ করে বলেন, দুবার রাষ্ট্রপতি হয়েছি। কিন্তু তাড়াইল আসা হয়নি। তাই সবার সঙ্গে দেখা সাক্ষাত করতে আপনাদের কাছে এসেছি।

আবদুল হামিদ রাজনীতিক ও জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, রাজনীতিকদের প্রতিটি দিন হওয়া উচিত নির্বাচনের দিনের মতো। নির্বাচনের আগে তারা যেভাবে মানুষের সঙ্গে ব্যবহারটা করেন সেই রকম ব্যবহার প্রতিদিনই মানুষের সঙ্গে করা উচিত। মানুষের আপদ বিপদে পাশে থাকতে হবে। অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের কাছে এলাকার কিছু দাবি-দাওয়ার কথা তুলে ধরা হয়।

রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তাড়াইল যাওয়ায় সেখানে স্থানীয়দের মধ্যে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করে। অনুষ্ঠানের সময় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হলে পুরো আয়োজনটি সংক্ষিপ্ত করা হয়।

এর আগে রাষ্ট্রপতি তাড়াইল সদরে স্থাপিত মুক্তিযোদ্ধা ভাস্কর্য উদ্বোধন করেন। আগামীকাল কিশোরগঞ্জ সদরে আইনজীবী সমিতি আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেবেন। এরপর ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত তিনি মিঠামইন, ইটনা ও অষ্টগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়াসহ সেখানকার উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিদর্শন করবেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019