রিফাত হত্যা মামলার অ-প্রাপ্তবয়স্ক ১৪ শিশুর রায় ২৭ অক্টোবর

জয়যাত্রা ডট কম : 14/10/2020


এম আর অভি,বরগুনা: বরগুনা আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার এজাহারভূক্ত আইনের সহিত সংঘাতে জড়িত অ-প্রাপ্তবয়স্ক ১৪ শিশুর রায় আগামী ২৭ অক্টোবর। বুধবার (১৪ অক্টোবর) বরগুনা শিশু আদালতের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এ রায়ের দিন ধার্য করেন। রিফাত হত্যা মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের শেষে এ আদেশ দেন বরগুনা জেলা শিশু আদালত।
আদালত সূত্রে জানা যায়, রিফাত হত্যা মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে ৭৪ সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহন শেষ হওয়ার পর সকল আসামীর পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা।
বুধবার (১৪ অক্টোবর ) দুপুরে আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বরগুনা নারী ও শিশু আদালতের (বিশেষ) পি.পি.(পাবলিক প্রসিকিউটর ) মো. মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল উপস্থাপিত রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তিখন্ডন শেষ করেন। এরপর এমামলার রায়ের দিন ধার্য করে আদালত।
এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বরগুনা নারী ও শিশু আদালতের (বিশেষ) পি.পি.(পাবলিক প্রসিকিউটর ) মো. মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল বলেন, পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী আজ এই মামলার যুক্তিতর্কের অবশিষ্ঠ অংশ আদালতে উপস্থাপন করা হয়।এরপর যুক্তিতর্ক শেষ হলে আদালত আগামী ২৭ অক্টোবর এ মামলার রায়ের দিন ধার্য করেন। একই সঙ্গে এ মামলার জামিনে থাকা অপ্রাপ্তবয়স্ক আট আসামীকে নিজ নিজ আইনজীবীর জিম্মায় ফের জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে।
এদিকে মামলার ধার্য তারিখ থাকায় সকালে হাজির হয় এ মামলায় জামিনে থাকা অপ্রাপ্তবয়স্ক আট(৮) আসামি। কড়া নিরাপত্তায় বরগুনা কারাগার থেকে ছয় আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়।
সকাল থেকেই আদালত প্রাঙ্গনের নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার ছিল । আদালতে আসা সকল বিচার প্রার্থীকে তল্লাসি করে আদালতের ভেতরে ঢুকানো হয়।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বরগুনা নারী ও শিশু আদালতের পি.পি.(পাবলিক প্রসিকিউটর) মো.মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল আরও বলেন, আমরা আদালতের কাছে সকল অসামির বিরুদ্ধে তথ্যপ্রমান উপস্থাপন করতে সক্ষম হয়েছি। আশা করি আদালত এ মামলায় সকল আসামিকে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করবেন।
চলতি বছরের ১ জানুয়ারি প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আসাদুজ্জামান। এরপর ৮ জানুয়ারী থেকে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহন শুরু করেন আদালত। এ মামলায় মোট ৭৬ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহন করা হয়।
১৬ সেপ্টেম্বর এ মামলার দুই পক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আসাদুজ্জামান রায়ের জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর(বুধবার) দিন ধার্য করেন।
এরপর ৩০ সেপ্টেম্বর(বুধবার) রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রীআয়েশা ছিদ্দিকা মিন্নিসহ ৬ জন আসামীর ফাঁসির রায় ঘোষনা করেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এবং ৪ আসামীকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত। আসামীদের এছাড়াও ৫০হাজার টাকা জরিমানা নির্দেশ দেয় আদালত।
গতবছরের ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশাকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত ফরাজি। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ আরও দুই যুবক রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে । তারা রিফাত শরীফকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাতকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়।
পরের দিন ২৭ জুন এই ঘটনায় রিফাত শরিফের বাবা আবদুল হালিম বাদী হয়ে বরগুনা থানায় ১২জনের নামে ও ৪/৫জনকে অজ্ঞাত আসামি করে একটি হত্যা মামলা করনে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019