মোরেলগঞ্জে হয়রানিমূলক মামলায় দুটি পরিবার এখন মানবেতর জীবন যাপন

জয়যাত্রা ডট কম : 12/01/2021

শামীম আহসান মল্লিক, বাগেরহাট প্রতিনিধি:
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার বহরবুনিয়া ইউনিয়নের ৩শ’ বিঘার একটি মৎস্য ঘের দখল ও হয়রানিমূলক মামলার শিকার দুটি পরিবার এখন মানবেতর জীবন যাপন করছে। আতঙ্কের দিন কাটছে এ পরিবার দুটি।
অভিযোগে জানা গেছে, ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাসুম বিল্লাহ মাসুদ ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি তারিকুল ইসলাম গোলাম ১৯৯৯ সাল থেকে ১০০ নং বহরবুনিয়া মৌজায় ৩শ’ বিঘার একটি মৎস্য ঘের পরিচালনা করে। ৭ বছর যাবৎ অন্যান্য ঘেরের জমির মালিকদের যথারীতি হাঁড়ির টাকা পরিশোধ করে আসছিল। কিন্তু এ ঘেরের প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ে এলাকার কতিপয় প্রভাবশালীর। প্রভাবশালীরা রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় জনৈক কামরুলজ্জামান সোহাগ ও সহযোগীরা ২০১৬ সালের পর দখল করে নেয়। এতেও ক্ষান্ত না হয়ে প্রতিপক্ষরা তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, মারপিট মামলা সহ বিভিন্ন হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করে। বিভিন্ন মামলায় হয়রারি শিকার পরিবারটি ২০১৬ সালে পৈতৃক ভিটে ছেড়ে অন্যত্র বসবাস করছে। মামলা থেকে রেহাই পায়নি তারিকুল ইসলাম গোলাম স্ত্রী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা খালিদা ইয়াসমিন।
ঘেরটি বেদখল হওয়ার পর হাঁড়ির টাকা পাচ্ছেনা বলে জানায় ঘেরের জমির মালিক সুলতান মোল্লা, সিদ্দিক মোল্লা সহ একাধিক ভূক্তভোগী।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেন, নিজ পৈতৃক জমিতে স্থানীয়রা মিলে এ ঘেরটি করা হয়েছে। করো জমি বেদখল ও মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়নি।
বর্তমান মৎস্য ঘের মালিক দাবিদার কামরুলজ্জামান সোহাগ বলেন, স্থানীয়দের হাড়ির টাকা পরিশোধ করে মৎস্য ঘেরটি করা হচ্ছে। জোর পূর্বক নয়। স্থানীয় রাজনৈতিক কোন্দলের কারনে তার বিরুদ্ধে শুধুমাত্র বাগেরহাট থানায় দুটি মামলা রয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019