ভারতে করোনা টিকাদান শুরু

জয়যাত্রা ডট কম : 16/01/2021


জয়যাত্রা ডেস্ক :
ভারতে মহামারি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

এ সময় নরেন্দ্র মোদি বলেন, ভ্যাকসিন তৈরি হতে অনেক সময় লাগে। কিন্তু দেশের বিজ্ঞানিরা দিন-রাত এক করে পরিশ্রম করেছেন। তাদের প্রশংসা প্রাপ্য। ৩ কোটি স্বাস্থ্যকর্মীকে ভারত সরকার বিনামূল্যে টিকা দেবে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়া কর্মীদের আগে টিকা দিয়ে দেশ ঋণ শোধ করবে। দ্বিতীয় দফায় ৩০ কোটি মানুষ টিকা পাবেন। ধীরে ধীরে সবাইকেই টিকা দেওয়া হবে।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ রয়েছে। এক মাসের মধ্যেই এই দুটি ডোজ নিতে হবে। ভ্রান্তির কোনো স্থান নেই। প্রথম ডোজ দুই সপ্তাহের মধ্যেই কাজ করবে।

টিকা দেওয়া শুরু হলেও দেশবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। তিনি বলেন, ‘টিকাকরণের পরও মাস্ক পড়তে হবে। ২ গজের দূরত্ববিধি মানতে হবে। গা ঢিলে দিলে পরিণতি কঠিন হতে পারে।’

এদিকে কলকাতায় মোট ২০৭টি কেন্দ্র থেকে করোনার টিকাকরণ প্রক্রিয়া চালাচ্ছেন প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীরা।কলকাতা শহরে ১৭টি কেন্দ্র থেকে করোনার টিকাকরণ প্রক্রিয়া চলছে।

অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে টিকা দেওয়া হচ্ছে প্রথম সারির করোনা যোদ্ধা, স্বাস্থ্য কর্মীদের। সরকারি হিসেবে প্রায় ৩ কোটি মানুষকে প্রথম পর্বে টিকা দেওয়া হবে। তারপর করোনার টিকা পাবেন আরও ২৭ কোটি ভারতীয়। এক্ষেত্রে ৫০ বছরের বেশি ও ৫০-এর কম অথচ কো-মর্বিডিটি রয়েছে, তাদেরই টিকা দেওয়া হবে দ্বিতীয় পর্যায়ে।

প্রথম পর্যায়ে রাজ্যে ৬ লক্ষ ৪৪ হাজার ৫০০ জনের টিকাকরণ হবে। সবথেকে বেশি ভ্যাকসিন কলকাতার জন্যই বরাদ্দ হয়েছে। শহর কলকাতায় টিকাকরণের আওতায় ৯৩ হাজার ৫০০ স্বাস্থ্যকর্মী।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019