Posted on

শরণখোলায় ইলিশ বোঝাই ট্রলার জব্দ করেছেন কোস্টগার্ড

sdr

শামীম আহসান মল্লিক, বাগেরহাট প্রতিনিধি:
আহরণ নিষিদ্ধ ইলিশ বোঝাই এফবি গাজী-২ নামের একটি ফিশিং ট্রলার জব্দ করেছে কোস্টগার্ড। বিকেলে বাগেরহাটের শরণখোলা রাজৈর মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে একটন ঝাটকা সহ নিয়ে আসা হয় জব্দ ট্রলাটি। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ট্রলারের মাঝিকে (চালক) জরিমানা ও জাটকাগুলো এতিমখানায় বিতরণ করেন শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কচিখালী কন্টিনজেন্টের কোস্টগার্ড সদস্যরা বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে অভিযান চালিয়ে বলেশ্বর নদের মোহনা থেকে ১৫ জন জেলেসহ জাটকা বোঝাই ট্রলারটি জব্দ করেন।

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের কচিখালী কন্টিনজেন্ট কমান্ডার এম হাবিবুর রহমান জানান, তারা ওই রাতে বলেশ্বর নদে নিয়মিত টহলকালে ফিশিং ট্রলারটি দেখে থামাতে বলেন। তখন না থামিয়ে দ্রুত গতিতে চালিয়ে যাওয়ায় তারা স্পিডবোটে ধাওয়া করে জব্দ করেন ট্রলারটি। বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার কাঁঠালতলা গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী মো. ওয়ারেছ গাজীর মালিকানাধীন ওই ট্রলারে থাকা জেলেদের বাড়ি বরগুনা সদরের পোটকাখালী এলাকায়।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরদার মোস্তফা শাহিন বলেন, মৎস্য আইনে ট্রলার মাঝি ফোরকান মিয়াকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫দিনের কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া জাটকাগুলো উপজেলার সকল এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।