বন্ধে নয়, স্কুল-কলেজ খুললে কমবে করোনা ঝুঁকি

জয়যাত্রা ডট কম : 23/02/2021


নিজস্ব প্রতিবেদক :
গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। প্রায় ১ বছর পর আগামী ২৪ মে খোলা হবে দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়। এরই মধ্যে বাতিল হয়েছে পিএসসি, জেএসসি, এইচএসসি এবং সব শ্রেণীর বার্ষিক পরীক্ষা। দীর্ঘদিন শিক্ষা কার্যক্রম থেকে দূরে থাকার কারণে এখন ৭৫% শতাংশ শিক্ষার্থী এবং ৭৬% অভিভাবক চান স্কুলগুলো স্কুলে দেয়া হোক। একটি বেসরকারী সংস্থার গবেষণা প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পক্ষে রয়েছেন শিক্ষাবিদরাও।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ছিদ্দিকুর রহমান সোনালী নিউজকে বলেন, দেশে করোনা ভাইরাস কতদিন থাকবে এর কোন নিশ্চয়তা নেই। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সবকিছুই স্বাভাবিক নিয়মে চলছে। শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করছে, বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি ছাড়াই।

বরং স্কুল কলেজ খুলে দিলে শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাসে আসতে বাধ্য হবে। ফলে করোনার ঝুঁকি কমবে। অটোপাশ দিলে শিক্ষার্থীরা কিছু শিখতে পারছেনা। ১ বছর শেষ হয়ে গেল। এই ক্ষতি পুশিয়ে নিতে হবে। এজন্য দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খূলে দেওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি।

গণস্বাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে. চৌধুরী বলেন, সমস্ত প্রস্তুতি নিয়ে ধাপে ধাপে শ্রেণী কার্যক্রম শুরু করার জন্য যতো দ্রুত সম্ভব ঘোষণা করা প্রয়োজন এবং এটি বাস্তবায়নের জন্য শিক্ষা প্রশাসন ও বেসরকারি সংগঠনকে যুক্ত করে প্রস্তুতি নিতে হবে। সেই ব্যবস্থা মনিটরিং করতে হবে। সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্কুলগুলো খোলার ব্যবস্থা করতে হবে।

এদিকে ঈদ-উল-ফিতরের পর ২৪ মে থেকে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আর আবাসিক হলগুলো এক সপ্তাহ আগে অর্থাৎ ১৭ মে খুলে দেওয়া হবে। আর অনলাইন ক্লাস যেভাবে চলছে সেভাবেই চলবে। করোনাকালীন উচ্চশিক্ষার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সোমবার দুপুর সোয়া ২টায় অনলাইনে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী একথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী আরও জানান, হল খুলে দেওয়ার আগেই আবাসিক শিক্ষার্থী, শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী সবাইকেই টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। আগামী ২৪ মে থেকে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও স্কুল ও কলেজ এবং মাদরাসাগুলো কবে থেকে খোলা হবে তা এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুব দ্রুত খুলে দেওয়া যায় কিনা তা যাচাই করতে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে স্কুল-কলেজ খোলার আগে শিক্ষক-কর্মচারীদের ভ্যাকসিন দিতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন।

সোমবার মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এই নির্দেশনা দেন। সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আলোচনা হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দ্রুত খোলা যায় কিনা তা যাচাই করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। এর জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে প্রধান করে একটি অন্তমন্ত্রণালয় কমিটি হবে। কমিটি আগামী ৫-৬ দিনের মধ্যে বৈঠক করবে।

সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে সব শিক্ষক ও কর্মচারীর টিকা নেওয়া নিশ্চিত করতে বলেছেন। এটাসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশসহ অন্যান্য বিষয়ে অন্তমন্ত্রণালয় বৈঠকে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক - তোফাজ্জল হোসেন
Mob : 01712 522087
ই- মেইল : [email protected]
Address : 125, New Kakrail Road, Shantinagar Plaza (5th Floor - B), Dhaka 1000
Tel : 88 02 8331019