ধর্ষণের শিকার সেই নারীর স্বামী বললেন, ‘আসল সত্য সবার জানা উচিত’

বিশেষ প্রতিনিধি

কক্সবাজারে যে গৃহবধূ সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে তার স্বামী বলেছেন, এই ঘটনার আসল সত্য এখনো আড়ালে। সুষ্ঠু ও সঠিক তদন্ত হলে সত্য বেরিয়ে আসবে বলে মনে করেন তিনি।

সোমবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূর স্বামীর সঙ্গে কথা হয়। তিনি বলেন,আদালতে যে বয়ান তার স্ত্রী দিয়েছেন এটা চাপে পড়ে দিয়েছেন। শিগগিরই তিনি আসল ঘটনা সংবাদ সম্মেলন করে প্রকাশ করবেন।

স্ত্রীকে অপহরণের পর ৯৯৯- এ কল করেন তার স্বামী। তবে পুলিশ শুরু থেকে বলছে, ৯৯৯- এ কোনো কল করেননি তিনি। গৃহবধূর স্বামী এও দাবি করেন, ঘটনার রাতে তিন দফায় ৯৯৯-এ কল করেন তিনি। একবার কল কেটে গেলেও দু’বার কথা হয়েছিল। তারা (পুলিশ) থানায় জিডি করার পরামর্শও দেন।

তিনি আরও জানান, পাঁচ দিন পর মুক্তি পেয়েছেন তারা। মঙ্গলবার সকালে স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে ঢাকায় ফিরেছেন। ঢাকায় ফিরে সন্তানের জন্য একটি নতুন জামা কিনেছেন।

স্ত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের ঘটনার মামলার বাদী বলেন,‘নিরাপত্তা নিয়ে শুরুতে শঙ্কিত ছিলাম আমরা। এখন শঙ্কা কিছুটা কমেছে। তবে প্রকৃত সত্য বের হবে কি-না এটা জানি না। উচ্চ আদালতে যেতে চেয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত যাব কি-না তা নিয়েও ভাবছি।’

উল্লেখ্য, গত ২২ ডিসেম্বর বুধবার রাতে স্বামী-সন্তানকে নিয়ে কক্সবাজারে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ঢাকার এক গৃহবধূ। সংঘবদ্ধ একটি চক্র শহরের লাবণী পয়েন্ট থেকে ওই নারীকে তুলে নিয়ে তার স্বামী-সন্তানকে জিম্মি করে ও হত্যার হুমকি দিয়ে কয়েক দফা ধর্ষণ করে। পরে খবর পেয়ে বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে জিয়া গেস্ট ইন নামের একটি হোটেল থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করে র‌্যাব। এই ঘটনায় পরদিন একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়।